কিভাবে জুম অ্যাপ ব্যবহার করব

বর্তমানে অনলাইনে ক্লাউড মিটিং করার জন্য জুম অ্যাপস (Zoom apps) খুবই জনপ্রিয় মাধ্যম। এর মাধ্যমে ঘরে বসেই অনলাইনে ক্লাস, অফিসের মিটিং, ট্রেনিং, প্রোগ্রাম ইত্যাদি কাজগুলো সহজেই করা যায়। তাই আমাদেরকে জুম অ্যাপ ব্যবহারের নিয়ম কানুন জানা উচিত।

জুম অ্যাপ ডাউনলোড

অনেকেই জানতে চান কিভাবে জুম অ্যাপস ডাউনলোড করব? জুম অ্যাপস সরাসরি তাদের ওয়েবসাইট থেকে ডাউনলোড করা যায়। এটি ডেক্সটপ, ল্যাপটপ কম্পিউটার এবং মোবাইলে ইনস্টল করা যায়। এছাড়া প্লে স্টোর থেকেও ডাউনলোড করা যাবে। ডাউনলোড লিংক: https://zoom.us/download   সরাসরি Play Store থেকে সরাসরি Download করার লিংক: https://play.google.com/store/apps/details?id=us.zoom.videomeetings   তবে জুম অ্যাপ ডাউনলোড না করেও ব্রাউজার থেকে ব্যবহার করা যাবে।

জুম অ্যাপস এ একাউন্ট খোলার নিয়ম

জুম অ্যাপ খোলার পর যে বিষয়ে চিন্তা করতে হয় তা হলো sign up করতে হবে কিনা? সাইন আপ না করলেও আপনি যেকোনো মিটিংয়ে অংশগ্রহণ করতে পারবেন। তবে সাইন আপ করলে কিছু সুবিধা পাওয়া যায়। যেমন: ডিসপ্লে নেম, প্রোফাইল পিকচার সহ আরো নানা ফিচার পাওয়া যায়। তাই এক্ষেত্রে প্রথমে যাবতীয় তথ্য দিয়ে সাইন আপ করতে হবে এবং এরপর sign in করতে হবে। তবে আপনি যদি কাউকে মিটিং এ ইনভাইট করতে যান তাহলে আপনাকে অবশ্যই সাইন ইন করতে হবে। অর্থাৎ হোস্ট হতে হলে sign in করতে হবে।

জুম অ্যাপস সাইন আপ করার নিয়ম

এভাবে জুম আইডি খুলবেন
  1. প্রথমে sign up এ ক্লিক করতে হবে।
  2. এরপর আপনার জন্ম তারিখ, মাস ও বছর সিলেক্ট করতে হবে।
  3. তারপরে আপনার ইমেইল অ্যাড্রেস, ফার্স্ট নেইম, লাস্ট নেইম দিয়ে সাইনআপ এ ক্লিক করতে হবে।
  4. এখন চলে যাবেন আপনার ইমেইলে
  5. দেখবেন জুম থেকে একটি মেইল এসেছে সেখানে গিয়ে Active Account এ ক্লিক করতে হবে।
  6. ক্লিক করার পর একটি অপশন আসবে আপনি যদি কোন প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে সাইন আপ করেন তাহলে Yes দিবেন না হলে No দিয়ে continue-তে ক্লিক করবেন।
  7. এরপরে Password এবং Confirm Password দিবেন।  আপনার পাসওয়ার্ড অবশ্যই আট ডিজিট এর হতে হবে, এতে ইংরেজি বড় হাতের অক্ষর ও ছোট হাতের অক্ষর এবং সংখ্যা থাকতে হবে।
  8. এখন Continue তে ক্লিক করবেন ব্যাস আপনার কাজ শেষ।
  9. বাকি অপশন গুলো স্কিপ করে যেতে পারেন।

জুম অ্যাপ এ সাইন ইন করার নিয়ম

সাইন ইন করা একেবারে সোজা। আপনি যে ইমেইল দিয়ে সাইনআপ করেছেন প্রথমে সেই ইমেইল দিবেন। এরপর যেই পাসওয়ার্ড দিয়ে সাইন আপ করেছেন সেই পাসওয়ার্ড দিবেন দিয়ে সাইন ইন এ ক্লিক করবেন।

কিভাবে জুম মিটিং করব

Zoom meeting দুই ধরনের হতে পারে। ১. আপনি কারো মিটিংয়ে অংশগ্রহণ করবেন। যেমন: আপনি একজন ছাত্র, জুম দিয়ে আপনি অনলাইনে ক্লাস করবেন। এখানে আপনি হলেন যোগদানকারী বা অংশগ্রহণকারী।

আপনি যদি কোনো মিটিংয়ে যোগদান করতে চান তাহলে আপনাকে সেই মিটিং এর ID এবং Password জানতে হবে। প্রথমে আপনি আইডি দিবেন এবং পরে পাসওয়ার্ড দিতে হবে। তবে যেসব মিটিং পাবলিক করা থাকবে সেগুলোতে পাসওয়ার্ড না দিয়ে আপনি যোগদান করতে পারবেন। এছাড়াও মিটিং ইনভাইটেশন লিংকে ক্লিক করে যোগদান করা যাবে।

zoom meeting এ জয়েন করার নিয়ম

মিটিং এ জয়েন করার পর আপনাকে কিছুক্ষণ ওয়েটিং এ থাকতে হতে পারে অথবা সরাসরি যুক্ত হতে পারেন। যুক্ত হওয়ার পর আপনি যদি কোনো কথা বা অডিও শুনতে না পান তাহলে আপনাকে মাইক্রোফোন/ইয়ারফোন আইকনে ক্লিক করে call over internet অপশনে ক্লিক করতে হবে।

মনে রাখবেন হোস্ট যদি মিটিং শুরু না করে অথবা আপনি যদি মিটিং এর সময় মত জয়েন না করেন তাহলে কোন লাভ হবে না। join করার সবচেয়ে সহজ পদ্ধতি হলো invitation link এ ক্লিক করা। তাহলে আর আইডি লিখতে হয় না।

২. আপনি মিটিং এর হোস্ট। অর্থাৎ আপনি নিজেই মিটিং পরিচালনা করবেন। যেমন: আপনি একজন শিক্ষক, জুম অ্যাপ দিয়ে আপনি শিক্ষার্থীদের ক্লাস নিবেন বা টিচিং দিবেন। এখানে আপনি হলেন মিটিং পরিচালনাকারী বা হোস্ট।

মিটিং শুরু করা ও ইনভাইট করার নিয়ম
এখান থেকেও মিটিং করা যাবে।

মিটিং করার জন্য start a meeting ক্লিক করে মিটিং শুরু করতে হবে। মিটিং অনেক ভাবে শুরু করা যায়। New meeting থেকে, schedule meeting থেকে, PMI(personal meeting ID) দিয়ে, ইমেইলে থাকা schedule link থেকে ইত্যাদি।

এভাবে শিডিউল মিটিং সেট করবেন।
শিডিউল মিটিং লিস্ট এবং ডিটেইলস

মিটিং শুরু করার আগে বা সাথে সাথে যারা মিটিংয়ে অংশগ্রহণ করবে তাদেরকে ইনভাইট করতে হবে। অর্থাৎ আপনার মিটিং ID, Password অথবা meeting link যোগদানকারীদের কে জানাতে হবে। আপনি যদি personal meeting ID ব্যবহার করেন তাহলে আইডি নির্দিষ্ট করা থাকবে অন্যথায় প্রত্যেকবার নতুন নতুন আইডি ক্রিয়েট হবে। আপনার যদি মিটিং গুলো schedule করা থাকে তাহলে অংশগ্রহণকারীদেরকে পূর্বেই সেই মিটিং এর আইডি, পাসওয়ার্ড বা লিংক জানিয়ে রাখবেন।

জুম অ্যাপ ব্যবহার করার সময় যখন কথা বলতে হয় তখন microphone অন করে রাখতে হবে। আবার কথা বলা শেষে অফ করে দিতে হবে। তাহলে মিটিং এ সাইড সাউন্ড আসবে না। একইভাবে Video অন বা অফ করে রাখা যায়। Participants এ ক্লিক করে কারা যুক্ত আছে তাদের দেখা যায়। প্রয়োজনে চ্যাটিং করা যাবে। এছাড়াও স্ক্রিন শেয়ার করা যাবে। এটি ব্যবহারের কোন নিয়ম বুঝতে না পারলে কমেন্ট করে জানান।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *