আকর্ষণীয় বিজ্ঞাপন তৈরির নিয়ম

বিজ্ঞাপন শুধু তৈরি করলেই হবে না এর মান ও কার্যকরীতা রক্ষা করতে হবে। ক্রেতাদের মনোযোগ আকর্ষণ করে পণ্য বা সেবা গ্রহণে আগ্রহী করে তুলতে হলে, কার্যকর বিজ্ঞাপন তৈরি করতে হবে। Advertising করার মূল উদ্দেশ্য থাকে ক্রেতাকে কোন পণ্য বা সেবা সম্পর্কে অবহিত করা এবং তা গ্রহণে প্ররোচিত করা। একটি বিজ্ঞাপন তখনই সফল হবে যখন এটি ক্রেতাদের মনে স্থান পাবে। এজন্য বিজ্ঞাপন তৈরির নিয়ম গুলো অনুসরণ করতে হবে।

১. বিজ্ঞাপন প্রকাশের মাধ্যম নির্বাচন

প্রথমেই আপনাকে সিদ্ধান্ত নিতে হবে কোন মিডিয়ার(Media) সাহায্য বিজ্ঞাপন প্রচার করা হবে। কেননা মিডিয়ার উপর ভিত্তি করে বিজ্ঞাপনের আকার, শব্দের পরিমাণ, গ্রাফিক্স, ভিডিও ইত্যাদি সাজাতে হবে। আপনাকে চিহ্নিত করতে হবে আপনার বর্তমান ও সম্ভাব্য ক্রেতা কোন মিডিয়ার সাথে বেশি সংযুক্ত। পত্রিকা, রেডিও, টেলিভিশন, ওয়েবসাইট, ফেসবুক ইত্যাদি অনেক মিডিয়া বা মাধ্যম রয়েছে। আপনার পণ্য বা সেবা যদি সচেতন নাগরিকদের নিকট উপস্থাপন করতে চান তাহলে পত্রিকা নির্বাচন করা যেতে পারে। যুবক – যুবতী বা ইয়াং জেনারেশনের নিকট উপস্থাপন করতে হলে ফেসবুক (Facebook Sponsored) নির্বাচন করা যায়।

সকল স্তরের ব্যাক্তির ক্ষেত্রে টেলিভিশন মাধ্যমে প্রকাশ করা যায়। পত্রিকায় বিজ্ঞাপন প্রকাশ করলে গ্রাফিক্স ও বাক্যের দিকে খেয়াল রাখতে হবে। রেডিওতে হলে শব্দের দিকে জোর দিতে হয়। আবার টেলিভিশনে বিজ্ঞাপন প্রকাশ করলে সবকিছুই সতর্কতার সাথে উপস্থাপন করতে হবে। আবার একই বিজ্ঞাপন বিভিন্ন মিডিয়ায় প্রচার করতে হলে সমন্বয় করে উপস্থাপন করতে হবে।

২. শ্রোতা উপযোগী বিজ্ঞাপন তৈরি

বিজ্ঞাপন কোন ধরনের ক্রেতাদের জন্য প্রকাশিত হবে তার দিকে লক্ষ্য রেখে তৈরি করতে হবে। এক্ষেত্রে তাদের ভাষা এবং সংস্কৃতির দিকে বিশেষভাবে লক্ষ্য রাখতে হবে। খেয়াল রাখতে হবে বিজ্ঞাপনের এক একটি বাক্য, গ্রাফিক্স, শব্দ ইত্যাদি খুবই মূল্যবান। টার্গেট কাস্টমারের দিকে লক্ষ রেখে এগুলো উপস্থাপন করতে হবে।

বিজ্ঞাপনের প্রধান উদ্দেশ্য হলো বর্তমান ক্রেতাদের ধরে রাখা এবং সম্ভাব্য ক্রেতাদের আকৃষ্ট করা। তাই এক্ষেত্রে খুবই সতর্কতার সাথে বিজ্ঞাপন তৈরী করতে হবে। কোনভাবেই যেন বিজ্ঞাপন শ্রোতাদের বিরক্তির কারণ না হয়।

৩. মনোযোগ সৃষ্টিকারী শিরোনাম

বিজ্ঞাপনের শিরোনাম খুবই গুরুত্বপূর্ণ। শিরোনাম হতে হবে অদ্ভুত, আবেগময় বা উত্তেজনাপূর্ণ। শিরোনাম এমনভাবে উপস্থাপন করতে হবে যাতে করে ক্রেতারা প্রথম দৃষ্টিতে আকৃষ্ট হয়ে যায়। শিরোনাম বা হেডলাইনের মাধ্যমে ক্রেতাদের মনে আগ্রহ বা কৌতুহল সৃষ্টি করতে হবে।

৪. পণ্যের প্রতি আকর্ষণ সৃষ্টি

বিজ্ঞাপনের কেন্দ্রবিন্দু থাকবে ক্রেতাদেরকে পণ্যের প্রতি আকৃষ্ট করা। এইজন্য পণ্যের গুণগত মান তুলে ধরতে হবে। প্রতিযোগী পণ্য থেকে আপনার পণ্য কেন উত্তম তাকে তাকে বুঝাতে হবে। এক্ষেত্রে পণ্যের নাম বা ব্র্যান্ড ক্রেতার মনে যেন স্থায়ী হয় সেদিকে লক্ষ্য রাখতে হবে। ক্রেতা যেন দোকানে গেলে সেই বিজ্ঞাপনের কথা মনে করে আপনার পণ্যটি খুঁজে নেয়। পণ্য সম্পর্কে বিস্তারিত তথ্য ক্রেতা কোথায় পেতে পারে তা জানানো দরকার। এই জন্য ওয়েবসাইট বা হটলাইন নাম্বার দিতে হবে।

৫. বিজ্ঞাপন সংক্ষিপ্ত করা

বিজ্ঞাপন খুব বেশি দীর্ঘ সময়ের জন্য যেন না হয়। কারণ একজন গ্রাহক সময় নিয়ে বিজ্ঞাপন দেখে না। ক্রেতারা তাদের স্বাভাবিক কাজকর্মের সময় বিজ্ঞাপন দেখে থাকে। এইজন্য বিজ্ঞাপন সংক্ষিপ্ত হওয়া উচিত। মানুষ 30 সেকেন্ডের বেশি সময় ধরে বিজ্ঞাপন দেখতে চায় না। তাই বিজ্ঞাপন অল্প কথার মধ্যে মজাদার ও আকর্ষণীয় করে তুলতে হবে। এক্ষেত্রে লম্বা বাক্যের পরিবর্তে সংক্ষিপ্ত বাক্য ব্যবহার করা যেতে পারে।

অন্যান্য বিষয়

বিজ্ঞাপন তৈরীর ক্ষেত্রে আরো অনেক বিষয় প্রতি লক্ষ্য রাখতে হবে। বিজ্ঞাপনের স্ক্রিপ্ট লেখা থেকে শুরু করে রিলিজ করা পর্যন্ত সকল ক্ষেত্রে নিয়ম মেনে কাজ করতে হবে। এই জন্য আরও যে বিষয়গুলো খেয়াল রাখতে হবে তা হল

  • প্রশ্ন দিয়ে শুরু না করা
  • গ্রাহকদের পড়তে সুযোগ দেওয়া
  • খারাপ বিজ্ঞাপন পরিহার করা
  • স্বাভাবিক ধ্বনি ব্যবহার করা
  • বুদ্ধিমত্তার সাথে গ্রাফিক্স ব্যবহার করা

ভালো বিজ্ঞাপন তৈরি করতে হলে অনেক পরিশ্রম করতে হবে। দীর্ঘ সময় ধরে গবেষণা করে Advertising তৈরী করতে হবে তাহলে এর থেকে সুফল পাওয়া যাবে। মনে রাখতে হবে বিজ্ঞাপন শুধু পণ্যের প্রসার করে না ইহা ব্র্যান্ড ভ্যালুও বৃদ্ধি করে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *