তালাকের নোটিশ

তালাক দেওয়ার পর ১৯৬১ সালের মুসলিম পারিবারিক আইনের ৭(১) ধারা মতে তালাকের নোটিশ( divorce notice ) প্রদান করতে হয়। তালাকের নোটিশ পাঠানোর নিয়ম অনুযায়ী নির্দিষ্ট ফরমে সংশ্লিষ্ট নিকাহ ও তালাক রেজিষ্ট্রারের মাধ্যমে ডাকযোগে এই নোটিশ প্রদান করা হয়।

তালাকের নোটিশ কাকে দিতে হবে

তালাকের নোটিশের ২টি অনুলিপি বা কপি করতে হয়। একটি কপি যাকে তালাক দেওয়া হয়েছে তাকে প্রেরণ করতে হবে। অন্য কপি যাকে তালাক দেওয়া হয়েছে তার ইউনিয়ন চেয়ারম্যান/পৌরসভা/ সিটি কর্পোরেশন মেয়রকে পাঠাতে হবে।

  • স্বামীকে / স্ত্রীকে
  • স্বামী / স্ত্রীর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান/পৌরসভা/ সিটি কর্পোরেশন মেয়রকে

অর্থাৎ স্বামী তালাক দিলে স্ত্রীর নিকট আর স্ত্রী তালাক দিলে স্বামীর নিকট নোটিশ প্রেরণ করতে হবে।

তালাকের নোটিশ কত প্রকার

তালাকের নোটিশ দুই ধরণের হয়। যথাঃ-

১. স্বামী কর্তৃক তালাকের নোটিশ

২. স্ত্রী কর্তৃক তালাকের নোটিশ

তালাকের নোটিশ ফরম

তালাকের নোটিশে কি কি লিখতে হয়

  • প্রেরকঃ এখানে তালাক দাতার নাম উল্লেখ করতে হয়।
  • প্রাপকঃ এখানে তালাক গ্রহীতার নাম লিখতে হয়। এছাড়া তালাক গ্রহীতার ইউনিয়ন চেয়ারম্যান/পৌরসভা/ সিটি কর্পোরেশন মেয়রকে প্রাপক হিসাবে রাখতে হয়।
  • পক্ষঃ নিকাহ ও তালাক রেজিষ্টারের ঠিকানা
  • বিবাহের তারিখ ও তালাক দেওয়ার তারিখ
  • দেনমোহরের পরিমাণ ও উসুলের পরিমাণ
  • তালাক দেওয়ার কারণ
  • তালাক দাতার স্বাক্ষর ও ছবি
  • যাদের সামনে তালাক দিয়েছেন বা উচ্চারণ করেছেন সে সাক্ষীগনের স্বাক্ষর নিতে হবে।

তালাকের নোটিশ সম্পর্কে কিছু প্রশ্নের উত্তর

১.প্রশ্নঃ তালাকের নোটিশ প্রদান করলে কি তালাক কার্যকর হবে?

উত্তরঃ না। তালাকের নোটিশ প্রাদানের ৯০ দিন পর তালাক কার্যকর হবে। তবে স্ত্রী গর্ভবতী থাকলে সন্তান ভূমিষ্ঠ হওয়ার ৯০ দিন পর তালাক কার্যকর হবে।

২.প্রশ্নঃ তালাকের নোটিশ প্রদানের পর স্ত্রীর ভরণপোষণ দিতে হবে কিনা?

উত্তরঃ হ্যাঁ দিতে হবে। তালাক কার্যকর হওয়ার ৯০ দিন পর্যন্ত দিতে হবে।

৩. প্রশ্নঃ ইউনিয়ন চেয়ারম্যান/পৌরসভা/ সিটি কর্পোরেশন তালাকের নোটিশ পেলে কি করবে?

উত্তরঃ ইউনিয়ন চেয়ারম্যান/পৌরসভা/ সিটি কর্পোরেশন মেয়র তালাকের নোটিশ প্রাপ্তির ৩০ দিনের মধ্যে একটি সালিশী পরিষদ গঠন করবে। সালিশী পরিষদ উভয় পক্ষের পুনর্মিলনের জন্য বৈঠক করবে। যদি সালিশী পরিষদ সমঝোতা করতে ব্যর্থ হয় এবং তালাক দাতা তালাক প্রত্যাহার না করে তাহলে ৯০ দিন পর তালাক কার্যকর হবে।

৪.প্রশ্নঃ স্ত্রী তালাক দিলে স্বামীকে নোটিশ প্রদান করতে হবে?

উত্তরঃ হ্যাঁ স্বামীকে এবং ইউনিয়ন চেয়ারম্যান/পৌরসভা/ সিটি কর্পোরেশন মেয়রকে তালাকের নোটিশ প্রদান করতে হবে।

৫. প্রশ্নঃ তালাকের নোটিশ না দিলে কি হবে?

উত্তরঃ  তালাকের নোটিশ প্রদান না করলে এক বছর বিনাশ্রম কারাদন্ড বা ১০ হাজার টাকা জরিমানা অথবা উভয় প্রকার দণ্ডে দণ্ডনীয় হবেন। তবে স্বামী যদি নোটিশ প্রদান না করে তাহলে শাস্তি পাবে ঠিকই কিন্তু তালাক বাতিল হবে না। 

আরো পড়ুনঃ

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *