ডায়াবেটিস রোগীর পায়ের যত্ন

আমাদের দেশে দিন দিন ডায়াবেটিস রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। ডায়াবেটিস রোগীকে তার খাদ্য অভ্যাস পরিবর্তন করা ছাড়াও কিছু বিশেষ যত্ম নিতে হয়। ডায়াবেটিস রোগীর পায়ের যত্ন নেওয়া খুবই প্রয়োজন। কেননা পা মানুষের শরীরের গুরুত্বপূর্ণ অঙ্গ। যাদের ডায়াবেটিস রোগ আছে তাদের পায়ে নানা প্রকার অসুবিধা দেখা দিতে পারে। রক্ত চলাচলের অসুবিধার কারণে স্নায়ুতন্ত্রের অকার্যকারিতা ও পায়ের অনুভুতি শক্তি কমে যায়। একারণে পায়ে আঘাত লেগে সংক্রমণ দেখা দিতে পারে। সময়মত চিকিৎসা না নিলে পায়ে পচনশীল ঘা হতে পারে, কখনো কখনো পা কেটেও ফেলতে হয়। এজন্যে ডায়াবেটিস রোগীকে পায়ের বিশেষ যত্ন নিতে হয়। Dayabetis rogir payer zotno

পায়ের যত্নের তিনটি মূল নীতি

ক) পায়ে আঘাত যেন না লাগে এবং কাঁটা বা ক্ষত যেন না হয়।
খ) সব সময় পা শুকনা ও পরিস্কার রাখতে হবে।
গ) পায়ে কোন সমস্যা দেখা দিলে কিংবা কোন সংক্রমক রোগ হলে দ্রুত ডাক্তারের চিকিৎসা নিতে হবে।

পায়ের সমস্যা এড়াতে কয়েকটি বিষয় মেনে চলা উচিত

১. ব্যায়ামঃ ডায়াবেটিস রোগীকে এমনিতেই ব্যায়াম করতে হয়। তবে নিয়মিত পায়ের ব্যায়াম করতে হবে যাতে পায়ের রক্ত চলাচল ঠিক থাকে।
২. জুতাঃ জুতা নির্বাচনের ক্ষেত্রে অবশ্যই নরম(সফট) ও পরতে আরাম লাগে এমন জুতা নিতে হবে। জুতা ছাড়া খালি পায়ে হাঁটা উচিত না।
৩. মোজাঃ খালি পায়ে জুতা পায়ে না দিয়ে মোজা পরা উচিত। তবে ময়লা বা ভিজা মোজা পরা যাবে না। মোজা অবশ্যই শুকনা এবং পরিস্কার রাখতে হবে।
৪. পা শুকনা রাখাঃ পায়ে অত্যধিক গরম পানি ব্যবহার করা যাবে না। পা ধোয়ার পর শুকনা কাপড় দিয়ে মুছে ফেলতে হবে। বিশেষ করে আঙ্গুলের মাঝখানে ভালোভাবে মুছতে হবে যেন ভিজা না থাকে।
৫. নখ কাটাঃ সময়মত পায়ের নখ কাটতে হবে। তবে আঙ্গুলে যেন আঘাত না লাগে তা খেয়াল রাখতে হবে।
৬. সতর্কতাঃ আঘাত বা ক্ষত থেকে পা কে রক্ষা করতে হবে। পায়ের রঙের পরিবর্তন হলে তাড়াতাড়ি ডাক্তার দেখাতে হবে।

ডায়াবেটিস এমন একটি রোগ যা নিয়ন্ত্রণে না রাখলে এর সাথে শরীরের অন্যান্য সমস্যা দেখা দিতে পারে। এজন্যে ডায়াবেটিস রোগীকে পায়ের এবং দাঁতে যত্নের দিকে বিশেষভাবে খেয়াল রাখতে হবে। সবসময় অভিজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *