জমি ক্রয়ের আগে যা যা জানতে হবে

জমি ক্রয় করে ঝামেলা কিংবা প্রতারণার স্বীকার হতে চায় কে? কিন্তু অনেকে অজ্ঞতা বা অসচেতনতার কারণে পড়ে যায় ফাঁদে। যা অনেকের জন্যে হতে পারে চরম দুর্ভোগের। অনেক সময় কারো কারো সারা জীবনের সঞ্চয় বৃথা যায়। তাই জায়গা-জমি ক্রয় করার পূর্বে যে বিষয় গুলো জানতে হবে। তা হলো-

১. বিক্রেতা ক্রয় সূত্রে জমির মালিক হলে তার ক্রয়ের দলিল/বায়া দলিল অফিসের রেকর্ড এর সাথে মিল করে বিক্রেতার মালিকানা স্বত্ব নিশ্চিত হতে হবে। প্রয়োজনে ভূমির পিট দলিল বা ধারাবাহিক দলিল দেখে নিতে হবে।

২. উত্তরাধিকার সূত্রে প্রাপ্ত জমির ক্ষেত্রে শরীকদারদের সম্পত্তি বণ্টননামা(ফারায়েজ) অনুযায়ী তিনি কতটুকু অংশ পাবেন তা নিশ্চিত হতে হবে।

৩. বিক্রিত ভূমির খতিয়ানে বিক্রেতার নাম আছে কিনা তা দেখতে হবে। যদি না থাকে তবে তার মালিকানাস্বত্ব কাগজপত্র দ্বারা প্রমাণ করতে হবে।

৪. জমিটি কোন মৌজায় অবস্থিত, কোন খতিয়ান, কোন দাগ, ভূমির পরিমাণ, উক্ত পরিমাণে বিক্রেতার অংশ বা হিস্যা অনুযায়ী পরিমাণ ইত্যাদির কাগজপত্র ক্রয়ের পূর্বে ভালোভাবে যাচাই করতে হবে।

৫. ভূমির খাজনা বা উন্নয়ন কর পরিশোধ হয়েছে কিনা তা স্থানীয় তহশীল অফিস থেকে জেনে নিতে হবে। কেননা বকেয়া খাজনা ক্রেতাকে পরিশোধ করতে হবে। আবার দীর্ঘ দিন খাজনা না দেওয়ায় জমিটি নিলামে বিক্রি হয়েছে কিনা অথবা সরকার ক্রয় করে খাস করেছে কিনা তা যাচাই করতে হবে।

৬. জমিটি নিয়ে কোন মামলা / মোকদ্দমা রয়েছে কিনা বা জমিটি নিয়ে কারো সাথে গুরুত্বর শত্রুতা আছে কিনা এবং এটি বিক্রেতার দখলে আছে কিনা ইত্যাদি যাচাই করতে হবে। বিশেষ করে সার্টিফিকেট মামলা ভুক্ত কিনা কারণ এই মামলার জমি বিক্রয়যোগ্য নয়।

৭. পূর্বে এই জমি বিক্রি করেছে কিন্তু ক্রেতা নামজারী করেনি। এই সুযোগে বিক্রেতা প্রতারণামূলকভাবে ২য় বার বিক্রির চেষ্টা করছে কিনা তা অনুসন্ধান করতে হবে।

৮. জমিটি ক্রয়-বিক্রয়ে সরকারী কোন বাধা-নিষেধ রয়েছে কিনা বা এর আওতায় পড়ে কিনা তা দেখতে হবে।

এছাড়াও নিজে বা নিজের পরিচিত মানুষের মাধ্যমে এই বিষয় খোঁজ – খবর নিতে হবে। আপনি যে জমিটি কিনবেন তার চৌহদ্দী মানে চার পাশের মানুষ এবং তাদের জমি সম্পর্কে ধারণা নিন। জমির অবস্থান যদি রাস্তার পাশে না হয় তাহলে আপনি কি উড়াল দিয়ে যাবেন? সেক্ষেত্রে চলাচলের রাস্তা আছে কিনা বা না থাকলে তার বিকল্প পথ কি হবে তা জেনে নিন। ভূমির মধ্যে অবস্থিত দালানকোটা বা অন্য যেকোন সম্পত্তি যদি থাকে তার বিবরণ দলিলে উল্লেখ থাকবে কিনা তা জেনে নিতে হবে। একটু সচেতনতায় পারে আপনাকে প্রতারণার হাত থেকে বাঁচাতে।

BD Tweet এর সাথে থাকার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *