কম্পিউটার ও এর কাজ করার বৈশিষ্ট্য

কম্পিউটার এর কথা শুনলে আমাদের চোখের সামনে ভেসে উঠে ল্যপটপ বা ডেস্কটপের চিত্র। কিন্তু ইহা ছাড়াও কম্পিউটারের আরোও অনেক রূপ আছে। আজ আমরা জানবো কম্পিউটার কি এবং এর কাজ করার ভিত্তিতে কিছু বৈশিষ্ট্য।

কম্পিউটার কি

Compute শব্দটি থেকে Computer শব্দ তৈরি হয়েছে। এক সময় কম্পিউটার বলতে শুধু হিসাব করা বা গণনা করার যন্ত্রকে বুঝানো হতো। তবে বর্তমানে কম্পিউটার এমন একটি ডিজিটাল যন্ত্র যা প্রক্রিয়াকরণ করতে পারে। বর্তমানে কম্পিউটারের কাজের পরিধি এতই বিশাল যে এর বর্ণনা বলে শেষ করা যাবে না। computer ki

কম্পিউটারের কাজ করার বৈশিষ্ট্য

কম্পিউটারের বৈশিষ্ট্য অনেক। মজার ব্যাপার হচ্ছে এই যন্ত্রটি প্রোগ্রামযোগ্য। এতে যে নির্দেশ দেওয়া হয় সে নির্দেশ অনুসারে কাজ করে। বর্তমানে এটি অনেকগুলো যন্ত্রের বিকল্প হিসাবে কাজ করছে।
কম্পিউটারের কাজ করার অনেকগুলো বৈশিষ্ট্যের মধ্যে প্রধান ৩ টি বৈশিষ্ট্য হচ্ছে-

  • ক. দ্রুত গতিতে কাজ করা।
  • খ. নির্ভুল্ভাবে কাজ করা।
  • গ. স্মৃতিতে কাজ জমা রাখা।

ক. দ্রুত গতিতে কাজ করাঃ কম্পিউটার এত দ্রুত কাজ করে যে তা আমরা কল্পনাও করতে পারি না। কোন একটি বড় বা জটিল অঙ্ক করতে আমাদের হয়ত ঘণ্টার পর ঘণ্টা সময় লাগতে পারে কিন্তু কম্পিউটার সে অঙ্ক ১ মিলি সেকেণ্ডেরও কম সময় করে দিতে পারবে। কম্পিউটার সেকেন্ডকে যে ক্ষুদ্রতম অংশে ভাগ করে তা হচ্ছে-

  • ১ মিলি সেকেন্ড = ১ সেকেন্ডের এক হাজার ভাগের এক ভাগ।
  • ১ মাইক্রো সেকেন্ড = ১ সেকেন্ডের দশ লক্ষ ভাগের এক ভাগ।
  • ১ ন্যানো সেকেন্ড = ১ সেকেন্ডের একশত কোটি ভাগের এক ভাগ।
  • ১ পিকো সেকেন্ড = ১ সেকেন্ডের এক লক্ষ কোটি ভাগের এক ভাগ।

খ. নির্ভুল্ভাবে কাজ করাঃ বলা হয় যে, মানুষ ভুল করলেও কম্পিউটার ভুল করে না। ব্যবহারকারী কম্পিউটারকে যে তথ্য দিবে কম্পিউটার সে প্রাপ্ত তথ্য, উপাত্ত এবং নির্দেশের ভিত্তিতে কাজ করবে। যান্ত্রিক ত্রুটি না থাকলে কম্পিউটার অবশ্যই নির্ভুল ফল প্রদান করবে। তবে যদি ব্যবহারকারী ভুল তথ্য দেয় তবে কম্পিউটারও ভুল ফলাফল দিবে।

গ. স্মৃতিতে কাজ জমা রাখাঃ কম্পিউটারে আমরা যে কাজ করি তা স্মৃতিতে জমা রাখা যায়। আবার পরবর্তীতে সে জমা রাখা কাজকে ব্যবহার করা যায়। যেমন- আমি এখন যে লিখা লিখলাম এটি যদি অর্ধেক লিখার পরে সেভ করে রাখি পরবর্তীতে এই লিখা দেখা যাবে এবং বাকী অংশ সম্পূর্ণ করা যাবে। এছাড়াও এখানে স্থির চিত্র, ভিডিও সহ নানা রকম ফাইল সংরক্ষণ করা যায়।

উপরোক্ত বৈশিষ্ট্যগুলো ছাড়াও কম্পিউটারের অনেক বৈশিষ্ট্য বিদ্যমান। তবে এতকিছু থাকা সত্যেও এটি একটি নির্বোধ যন্ত্র। কেননা এটি নিজের বুদ্ধি খাটিয়ে কোন কাজ করতে পারে না। এটির প্রোগ্রামে যে নির্দেশ দেওয়া আছে ইহা শুধু সে নির্দেশ অনুসারেই কাজ করে। তবে বর্তমানে কম্পিউটারে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা ( Artificial Intelligence ) ব্যবহারের চেষ্টা চলছে। এইসব সুবিধার জন্য দিন দিন কম্পিউটারের জনপ্রিয়তা বৃদ্ধি পাচ্ছে এবং এর ব্যবহার আবশ্যক হয়ে পড়ছে।

1 thought on “কম্পিউটার ও এর কাজ করার বৈশিষ্ট্য”

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *